top of page

অ্যাক্রোমিওক্ল্যাভিকুলার জয়েন্ট pain এর চিকিৎসা

Updated: Feb 7

অ্যাক্রোমিওক্ল্যাভিকুলার (AC) জয়েন্ট pain কি? কিভাবে চিকিৎসা হয়

অ্যাক্রোমিওক্ল্যাভিকুলার (AC) জয়েন্ট হল কাঁধের সেই অংশ যেখানে  কলারবোন এবং কাঁধের ব্লেড মিলিত হয়। এটি কাঁধের গতিশীলতায় সহায়তা করে । এই জয়েন্টে আর্থ্রাইটিস প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে  দেখা যায় ।  এটি মূলত হয় যখন  স্ক্যাপুলা এবং কলার হাড়ের মধ্যকার মসৃণ তরুণাস্থি ক্ষয়ে যায়, তার সাথে পাতলা এবং রুক্ষ হয়ে যায়। এটি জয়েন্টে ব্যথা এবং জ্বালাভাব সৃষ্টি করতে পারে ।

  • এসি জয়েন্টে ব্যথা সাধারণত আঘাতজনিত কারণে বা আর্থ্রাইটিসের কারণে হয়।

  • এছাড়া বারবার কাজ করার ফলে এই ব্যাথা হতে পারে ।


এসি জয়েন্ট আর্থ্রাইটিসের লক্ষণগুলি সাধারণত সময়ের সাথে সাথে বাড়তে থাকে,  মূল লক্ষণগুলি হল :

  • ব্যথা সাধারণত কাঁধের উপরে ,ঘাড় এবং হাতে  থাকে ।

  • কাঁধের বেশী নড়া চড়া করা যায় না ,ব্যাথা হয় ।

  • মাথার উপরে কোনো জিনিস তোলা বা নামানো করা কষ্টকর হয় ।


কাদের মধ্যে হওয়ার প্রবণতা থাকে ?

  • খুব বেশী বয়েসে কাঁধে কোনো আঘাত লাগলে

  • পেশা গত কারণে কোনো ভারী জিনিস কেউ  ওঠা নামার কাজ করলে

  • কিছু বিশেষ খেলা যেমন basketball খেললে বা যারা নিয়মিত সাঁতার করেন

  • এছাড়া যাদের কিছু বিশেষ রোগ যেমন সোরিয়াটিক আর্থ্রাইটিস বা রিউমাটয়েড আর্থ্রাইটিস সেপটিক আর্থ্রাইটিস থাকলে ,এছাড়া  জয়েন্ট ক্যাপসুলের সংক্রমণ হলে হওয়ার সম্ভাবনা থাকে ।

 

ডাক্তার রা কিভাবে ব্যাথা চিহ্নিত করেন ?


AO-এর জন্য ডায়গনিস্টিক প্রক্রিয়ার জন্য  ডাক্তার রা রোগীকে  তাদের রোগের লক্ষণ এবং ব্যথার  ইতিহাস সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করবেন। তারপর তাদের শারীরিক পরীক্ষা করা হয় ।

পরীক্ষার সময়, ডাক্তার বিভিন্ন কারণের প্রশ্ন করেন  যেমন :

  • পেশী শক্তি

  • গতিশীলতা

  • কোমলতা বা ব্যথা

  • ফুলে যাওয়া বা বড় হওয়া

  • আগের কোনো  আঘাত এর ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করতে পারে


রোগীদের অবস্থা অনুযায়ী  ডাক্তাররা এক্স-রে করতে বলতে পারেন। এছাড়া জয়েন্টের স্থান দেখার জন্য ,হাড়ের আকারে পরিবর্তন দেখার জন্য এবং হাড়ের স্পারের গঠন চিত্র দেখার  জন্য কিছু ক্ষেত্রে,  ডাক্তার আল্ট্রাসাউন্ড ইমেজিং ব্যবহার করতে পারেন। এর মাধ্যমে AO এবং অন্যান্য অবস্থার মধ্যে পার্থক্য বুঝতে পারা যায়  যেমন রোটেটর কাফের সমস্যা।


অ্যাক্রোমিওক্ল্যাভিকুলার (AC) জয়েন্ট pain এর চিকিৎসা কীভবে করা হয় ?

  • ওষুধ: ননস্টেরয়েডাল অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি ড্রাগস (NSAIDs) এর মধ্যে রয়েছে ibuprofen  naproxenএবং diclofenac, তারা এনজাইমগুলিকে ব্লক করে কাজ করে যা ব্যথা এবং ফুলে যায়।

  • ডাক্তাররা অ্যাসিটামিনোফেন বা কর্টিকোস্টেরয়েডও নির্দেশ দিয়ে থাকেন ।

  • হায়ালুরোনিক অ্যাসিড: হায়ালুরোনিক অ্যাসিড ইনজেকশন সরাসরি জয়েন্টে দেওয়া হয় ।

  • শারীরিক থেরাপি, শক্তি প্রশিক্ষণ, এবং নমনীয়তা ব্যায়াম ব্যথা কমাতে এবং জয়েন্টে গতিশীলতা বজায় রাখতে সাহায্য করতে পারে।

 

কিভাবে অ্যাক্রোমিওক্ল্যাভিকুলার প্রতিরোধ করবেন?

  • সঠিক ভঙ্গি: ভাল ভঙ্গি বজায় রাখা দরকার । বিশেষ করে যখন দীর্ঘ সময় ধরে বসে থাকা বা দাঁড়ানো। এটি কাঁধে চাপ কমাতে সাহায্য করে।

  • নিয়মিত ব্যায়াম:

  • সঠিক কৌশল : ভারী বস্তু তোলার সময় সঠিক হাতের কৌশল ব্যবহার করতে হবে ।

 


About the Author -

Dr. Debjyoti Dutta stands as a prominent pain specialist and accomplished author, holding affiliations with Samobathi Pain Clinic and Fortis Hospital in Kolkata. Currently serving as a registrar at the Indian Academy of Pain Medicine, Dr. Dutta specializes in musculoskeletal ultrasound and interventional pain management. His noteworthy contributions to the field are exemplified through impactful publications like "Musculoskeletal Ultrasound in Pain Medicine" and "Clinical Methods in Pain Medicine," offering profound insights into effective pain management strategies. Beyond his clinical responsibilities, Dr. Dutta serves as a faculty member for the Asian Pain Academy Courses, playing a pivotal role in delivering top-notch pain management fellowship training in Kolkata, India. His dedicated efforts significantly contribute to the education and professional development of individuals in the field.

Comentários


bottom of page